শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

সাক্ষাৎকার

video

পেটে গুলি ঢুকে পিঠ দিয়ে বেরিয়ে যায়: রিজভী

সরকারের নির্দেশে ছুঁড়ে মারা গুলি তার পেটের ভেতরে ঢুকে মেরুদণ্ডের হাড় ভেদ করে বেরিয়ে যায়। মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সহপাঠিরা হাসপাতালে নিয়ে যান। তার সঙ্গে থাকা ছাত্রনেতা সিরাজ সিকদার সেসময়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। সবাই ধারণা করেছিলো, গুলিবিদ্ধ রিজভীকেও বাঁচানো সম্ভব না।
video

আল্লাহর জন্য রাজনীতি করেন মুফতি ফয়জুল্লাহ

ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিবের দায়িত্ব এখন মুফতি ফয়জুল্লাহর হাতে। এর আগে তিনি এ দলটির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। এছাড়াও তিনি কওমি মাদরাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করছেন। কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ারও তিনি গুরুত্বপূর্ণ পদে আছে।
video

‘ফুল টাইম পলিটিশিয়ান’ গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া

ছোটবেলা থেকেই রাজনীতি মননে মানসিকতায় মিশে আছে গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়ার। ছাত্রাবস্থায় সেই যে রাজপথে দাবি আদায়ের আন্দোলনে নেমেছেন, একটি বারের জন্যেও সে পথ ছাড়েননি। নানা চড়াই-উৎরাই, টানাপোড়েন আর বাধা বিপত্তের পাহাড় ডিঙ্গিয়ে নিজের নামটা শেষ
video

গানের সঙ্গে যার নিবিড় বন্ধুত্ব

চট্টগ্রামে বেড়ে ওঠেন তাহমিনা আফরিন। সেখানেই শুরু 'সা-রে-গা-মা-পা'। এতো ছোটবেলায় গান গাইতে শুরু করেন, যখন হারমোনিয়াম টেনে শিক্ষকের বাসায় যাওয়াই তার জন্য কষ্টকর। দুরন্তপনা ছেড়ে গানের শান্ত আঙ্গিনায় সেই যে পা ফেলেছেন, এখনও হাটছেন সে পথ ধরেই।
video

সৎ, যোগ্য ও পরিবারের মতাদর্শ জেনে নেতা বানানো উচিত —গোলাম রাব্বানী

গোলাম রাব্বানী। ছোটবেলায় মা আর মাতামহের মুখে বঙ্গবন্ধু আর মুক্তিযুদ্ধের গল্প শোনার মধ্য দিয়েই যার রাজনীতি করার অনুপ্রেরণা তিনি বর্তমান সময়ে ছাত্রলীগের আলোচিত নাম
video

ছাত্রলীগ হবে সরকার এবং শিক্ষার্থীদের সেতুবন্ধন —রকিবুল ইসলাম ঐতিহ্য

আসন্ন কাউন্সিলে শীর্ষ নেতৃত্বে যাদের নাম বেশ জোরেশোরে উচ্চারিত হচ্ছে ঐতিহ্য তাদের মধ্যে অন্যতম। কর্মী বান্ধব এই নেতা ইতোমধ্যেই প্রচারণা চালাচ্ছেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক পদ-প্রত্যাশী হিসেবে।

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাজনীতি করি —এম এ আউয়াল

২০০৫ সালে যখন বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন গঠণ হয় তখনই ছিলেন প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের একজন। বর্তমানে তরিকত ফেডারেশনের মহাসচিবের গুরুদায়িত্ব তার কাঁধে। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তীব্র প্রতিন্দ্বন্দ্বিতার মাধ্যমে লক্ষ্মীপুর-১ আসন থেকে নৌকা প্রতিককে বিজয়ী করেছেন।

সোনারগাঁওকে পর্যটনবান্ধব শিক্ষানগরী গড়ে তুলবো —মাসুদ দুলাল

দীর্ঘ প্রায় ৩০ বছরের রাজনীতিতে আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়ে এসেছেন, ভেঙ্গেছেন বাধার দেয়াল। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় মৃত্যুর মুখোমুখি হয়ে বেঁচে এসেছেন দুলাল। তবুও থেমে যাননি। সেবার যে উদ্দেশ্য নিয়ে রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েছেন, সেটিকে পূর্ণ করতে চান নিজেকে মানুষের কল্যাণে নিবেদন করে।
ড. ফাহমিদা খাতুন

উচ্চবিত্তদের হাতে সম্পদ পুঞ্জীভূত হচ্ছে —ড. ফাহমিদা খাতুন

আমাদের দেশের অবস্থা এমন হয়নি যে, এখানে বিনিয়োগের আর কোনো সুযোগ নেই, তাই দেশের বাইরে বিনিয়োগ করতে হবে। আমাদের ব্যক্তিখাতে বিনিয়োগ তো বাড়ছেই না। জিডিপির অংশ হিসেবে ব্যক্তিখাতের বিনিয়োগ ২৩ শতাংশের মধ্যে আটকে রয়েছে।

সিনিয়র শিল্পীরা আত্মকেন্দ্রিক ছিলেন— আসিফ আকবর

রাজধানী থেকে মফস্বল সব চায়ের দোকান, বসতবাড়ি এমনকি রাস্তায় চলমান ও অপেক্ষমান নাগরিকের কণ্ঠে ভেসে আসছে একটা লাইন ‘ও প্রিয়া ও প্রিয়া তুমি কোথায়’। চলে যাওয়া প্রিয়তমার প্রতি এমন দৃশ্যমান দরদে যিনি ভাসিয়েছিলেন শহর থেকে শহর তিনি আসিফ আকবর।

জনপ্রিয়

সর্বশেষ