শেয়ারবাজারে সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে

815

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সব সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। আগের দিনের তুলনায় এদিন হাত বদল হওয়া অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। তবে আগের কার্যদিবসের তুলনায় এদিন লেনদেনের পরিমাণ বেড়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) আগের কার্যদিবসের তুলনায় এদিন লেনদেন পরিমান বেড়েছে। তবে আগের দিনের তুলনায় এদিন হাত বদল হওয়া অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে।  আগের কার্যদিবসের তুলনায় আজ সব সূচকের হয়েছে পতন।

রোববার দুই স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৯.৭০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫২৭৬.২৪ পয়েন্টে। ডিএসই-৩০ সূচক ১৩.৫২ পয়েন্ট ও শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ৬.৪৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১৮৫৫.৪৪ ও ১২২১.০৫ পয়েন্টে।

ডিএসইতে ৫৬৯ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। আগের দিনে লেনদেন ছিল ৫৫২ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। ডিএসইতে আজ হাত বদল হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ১১০টির, কমেছে ১৮৪টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন ছিল ২৪ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৯৮.৮৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৬১৮৫.৮৫ পয়েন্টে।

অপরগুলোর মধ্যে সিএসই-৫০ সূচক ১১.০৫ পয়েন্ট, সিএসই-৩০ সূচক ১২৭.৯০ পয়েন্ট, সিএসইএক্স ৬২.৮৭ পয়েন্ট ও সিএসআই ৫.৮৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১৮১.৩২, ১৪৬৬৯.০৬, ৯৮১২.২৬ ও ১০৮০.৭৬ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে লেনদেনে অংশ নিয়েছে ২২৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৮টির, কমেছে ১৪২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।