মাকড়সা: পৃথিবীর সবচেয়ে রোমাঞ্চকর প্রাণী

1383
মাকড়সা এই গ্রহের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর একটি প্রাণী। একজন মোটাসোটা মানুষও মাকড়সা দেখে স্কুল গার্ল এর মতোই চিৎকার করে ও লাফ দিয়ে চেয়ারের উপর উঠে যায়। কিন্তু এরা আসলেই অদ্ভুত চিত্তাকর্ষক প্রাণী। আপনি কি জানেন পিতা মাকড়সা খুব হিংস্র হয়ে উঠে অন্য মাকড়সাদের উপর? অথবা মাকড়সা কখনো ভিজে যায় না! মাকড়সা সম্পর্কে এরকমই আরো কিছু তথ্য জেনে নেই চলুন।

মাকড়সার এই ছবিগুলো তুলেছেন এখন-এর স্টাফ ফটোজার্নালিস্ট মুজতাহিদ হাসান

১। মাকড়সা প্রতিবছর যুক্তরাজ্যের জনগোষ্ঠীর সমতুল্য অর্থাৎ সাড়ে ছয় কোটির ও বেশি মাছি ও অন্যান্য পতঙ্গ ভক্ষণ করে থাকে।

২। মাকড়সাকে কেন বাথরুমে পাওয়া যায়? কারণ তারা পান করতে চায়। আমাদের ঘরের পরিবেশ শুষ্ক তাই তারা তৃষ্ণা মেটাতে বাথরুমে থাকে।

৩। ফলস উইডো মাকড়সার কামড় ততোটা খারাপ হয়না। মাকড়সা বিশেষজ্ঞ টিম ককরিল এর মতে, ফলস উইডো মাকড়সার কামড় মৌমাছির হুল ফোটানোর চেয়ে কম মারাত্মক।

IMG_0756-3

৪। মাকড়সার পাকস্থলী শুধুমাত্র তরল খাদ্যই গ্রহণ করতে পারে। তাই তারা খাওয়ার আগে খাদ্যকে দ্রবীভূত করে নেয়। তারা কামড় দিয়ে শিকার ধরে এবং শিকারের পাকস্থলীর রস স্যুপের মত গ্রহণ করে অথবা লালা ও মুখের উপাঙ্গের দ্বারা শিকারকে চূর্ণ-বিচূর্ণ করে তারপর গলাধঃকরন করে।

৫। মাকড়সার দেহ পানিরোধক চুল দ্বারা আবৃত। তাই এর শরীরের চারপাশেই পাতলা জালের ন্যায় বায়ুর আবরণ থাকে। তাই তারা ভিজতে পারেনা। অর্থাৎ তারা সবসময়ই ভাসছে এবং কেউ কেউ পানির নীচে ঘন্টার পর ঘন্টা বেঁচে থাকতে পারে। এজন্যই তারা ড্রেইনের ভেতর দিয়ে উপরে উঠে আসতে পারে।

IMG_0724-2

৬। কিন্তু সাবান বা অন্য কোন উপাদান দিয়ে যখন জল নিষ্কাশনের পথ পরিষ্কার করা হয় তখন মাকড়সার বাতাস আটকে রাখার ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায়। ফলে তারা তখন ডুবে মারা যায়।

৭। পৃথিবীতে ৪০,০০০ প্রজাতির মাকড়সা আছে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা খুব কম প্রজাতিই শনাক্ত করতে পেরেছেন।