সৌদি আরবে পারমণবিক শক্তি প্রযুক্তি বিক্রির গোপন অনুমোদন মার্কিন প্রশাসনের

1114

সৌদি আরবে পারমণবিক শক্তি প্রযুক্তি বিক্রি ও সহায়তার জন্য মার্কিন কোম্পানিগুলোকে ছয়টি বিষয়ে গোপন অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জ্বালানিমন্ত্রী রিক পেরি এ অনুমোদন দেন। ট্রাম্প প্রশাসন নীরবেই সৌদি আরবের সঙ্গে পারমাণবিক কর্মসূচির জন্য বড় ধরনের চুক্তি করছে। এর মধ্যে সৌদি আরবে কমপক্ষে দুটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের পরিকল্পনাও আছে।

সৌদি আরবের সঙ্গে পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে চুক্তি করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও দক্ষিণ কোরিয়া এবং রাশিয়ারও প্রতিযোগিতায় লিপ্ত। এ বছরের শেষ দিকে সৌদি আরব বিজয়ী দেশের নাম ঘোষণা করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পেরি যে ছয়টি অনুমোদন দিয়েছেন তাকে বলা হচ্ছে ‘পার্ট ৮১০ অথোরাইজেশন’ । এর আওতায় কোনো চুক্তি করার আগে কোম্পানিগুলো প্রাথমিক কাজ করার অনুমতি পাবে। তবে চুক্তি না হওয়া পর্যন্ত প্ল্যান্টে কোনো যন্ত্রাংশ নিয়ে যেতে পারবে না।

এ গোপন অনুমোদনের খবর সংশ্লিষ্ট দুই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে  প্রথম প্রকাশ করেছে মার্কিন ডেইলি বিস্ট ওয়েবসাইট। জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের জাতীয় পারমাণবিক নিরাপত্তা প্রশাসন (এনএনএসএ) বলেছে, অনুমোদন পাওয়া কোম্পানিগুলো ট্রাম্প প্রশাসনকে এ বিষয়টি গোপন রাখতে বলেছে।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি মন্ত্রণালয় ‘পার্ট ৮১০ অথোরাইজেশন’ এর বিষয়গুলো জনগণের জন্য উন্মুক্ত রাখত। জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেছেন, অনুরোধের মধ্যে মালিকানার তথ্য দেওয়া আছে এবং একাধিক সংস্থার অনুমোদন প্রক্রিয়াধীনে এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু সৌদি আরবের সঙ্গে পারমাণবিক প্রযুক্তি ভাগাভাগি থেকে মধ্যপ্রাচ্যে পারমাণবিক অস্ত্র প্রতিযোগিতা ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে অনেক মার্কিন আইনপ্রণেতাই উদ্বিগ্ন।