যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হচ্ছেন হিলারি!

1201
US Secretary of State Hillary Clinton arrive to take part in a conversation along with Secretary of Defense Leon Panetta, hosted by the National Defense University and CNN at the National Defense University in Washington, DC, on August 16, 2011. AFP Photo/Jewel Samad (Photo credit should read JEWEL SAMAD/AFP/Getty Images)

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম নারী হিসেবে প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন নিশ্চিত করেছেন দেশটির সাবেক ফার্স্ট লেডি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন। ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী মনোনয়নের জন্য ছয় অঙ্গরাজ্যে প্রাইমারি ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল গতকাল মঙ্গলবার। তবে এর আগেই মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি) জানিয়েছে, গত রোববার যুক্তরাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত ভূখণ্ড পুয়ের্তোরিকোতে অনুষ্ঠিত প্রাইমারির পর হিলারি মনোনয়নের জন্য প্রয়োজনীয় ২ হাজার ৩৮৩ ডেলিগেটের সমর্থন পেয়ে গেছেন। এটাকেই তাঁর মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার ভিত্তি হিসেবে ধরা হচ্ছে। হিলারি ক্লিনটন এপির এই ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন, কিন্তু তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স বলেছেন, এপির দাবি সত্য নয়। সুপার ডেলিগেটদের অনেকের তাঁর পক্ষে ভেড়ার সম্ভাবনা রয়েছে এখনো।

বার্তা সংস্থা এপির ঘোষণায় এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত প্রাইমারি নির্বাচনের ফলে সংগৃহীত ডেলিগেট ছাড়াও ‘সুপার ডেলিগেট’দের সংখ্যা যোগ করা হয়েছে। সে কথা উল্লেখ করে স্যান্ডার্সের নির্বাচনী দপ্তর থেকে বলা হয়েছে, সুপার ডেলিগেটরা জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে দলীয় সম্মেলনে ভোট দেবেন। এর আগেই তাঁদের সংখ্যা হিসাবে আনা অযৌক্তিক। স্যান্ডার্স আশা করছেন, সর্বশেষ প্রাইমারিতে চমৎকার ফল পেয়ে তিনি সুপার ডেলিগেটদের মত পরিবর্তন করে তাঁর পক্ষে আনতে সক্ষম হবেন।
ডেমোক্রেটিক পার্টির নির্বাচিত প্রতিনিধি ও দলীয় কর্মকর্তাদের মধ্যে অনেকেই সুপার ডেলিগেট হিসেবে দলীয় সম্মেলনে ভোট দেওয়ার অধিকার রাখেন। তাঁদের প্রায় ৪০০ জন বাছাই পর্বের নির্বাচন শুরু হওয়ার আগেই হিলারির পক্ষে নিজেদের সমর্থন ঘোষণা করেন। ইতিমধ্যে তাঁদের মোট সংখ্যা বেড়ে ৫৭১-এ দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে স্যান্ডার্সের পক্ষে রয়েছেন মাত্র ৪৮ জন সুপার ডেলিগেট। এখনো ৯৩ জন সুপার ডেলিগেট তাঁদের সিদ্ধান্ত প্রকাশ করেননি। স্যান্ডার্স যুক্তি দেখিয়েছেন, অধিকাংশ জনমত জরিপ অনুযায়ী, সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিনি রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনায়াসে পরাজিত করতে সক্ষম। সে কারণে দলের স্বার্থে সুপার ডেলিগেটদের উচিত সিদ্ধান্ত বদলে তাঁকে সমর্থন করা।

নির্বাচনী বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, সুপার ডেলিগেটদের সমর্থন ছাড়া শুধু বাছাই পর্বের নির্বাচন থেকে হিলারি বা স্যান্ডার্স কেউই প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডেলিগেট সংগ্রহে সক্ষম হবেন না। জনমত জরিপ অনুসারে, গতকালের প্রাইমারিতে তাঁরা দুজন আনুপাতিক হারে ডেলিগেট ভাগাভাগির পরেও হিলারির অন্তত ২০০ ডেলিগেটের কমতি পড়বে। অন্যদিকে স্যান্ডার্সের ঘাটতির পরিমাণ থাকবে ৫০০-এর বেশি।

সর্বশেষ প্রাইমারি ভোটের পর ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কে হচ্ছেন, সে কথা পরিষ্কার হয়ে যাবে। এই হিসাব মাথায় রেখে প্রেসিডেন্ট ওবামা এই সপ্তাহেই হিলারির পক্ষে তাঁর সমর্থন ঘোষণা করবেন বলে জানা গেছে। হোয়াইট হাউসের অনামী সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ওবামা তাঁর দলের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিতে আগ্রহী। প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাঁর অর্জন যাতে বৃথা না যায়, সে জন্য ওবামা একজন ডেমোক্রেটিক প্রার্থীকে হোয়াইট হাউসে দেখতে চান। আর সে প্রার্থী যে হিলারি ক্লিনটন, তাতেও কার্যত কোনো সন্দেহ নেই। নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ওবামার একাধিক উপদেষ্টা হিলারির প্রচারণা কমিটির সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন।

এখন/এসএস