মোদির জাঁকজমকপূর্ণ বিশাল শোভাযাত্রা

663

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মেগা রোড শো করলেন। ভারতের বিজেপির প্রার্থী হিসেবে আজ রাস্তায় তিনি দলের বড় বড় নেতাদের নিয়ে এই রোড শোতে অংশ নেন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাধারণত সব দলের নেতাকর্মীরা রোড শো বা শোডাউন করে থাকেন কিন্তু দেশটির প্রধানমন্ত্রী বড় কোনো রোড শো করবেন এটা নিয়ে অনেকে ভেবে উঠতে পারেননি।

বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে দশাশ্বমেধ ঘাট পর্যন্ত শোভাযাত্রা করেন। সব অর্থেই এই মেগা রোড শো ছাপিয়ে গেল আগের সব রাজনৈতিক অনুষ্ঠানের জাঁকজমককে বলেই দেশটির অনেক নেতাকর্মী মনে করছেন।

গেরুয়া শিবিরের সমস্ত শীর্ষনেতাই হাজির ছিলেন মোদির এই বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায়। গেরুয়া কুর্তা আর গেরুয়া উত্তরীয় পরে এসইউভিতে চড়ে মোদি হাত নাড়লেন লক্ষ লক্ষ জনতার উদ্দেশে। আক্ষরিক অর্থেই বারাণসীর রং তখন গেরুয়া।

নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে যে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে দাঁড় করাচ্ছে না কংগ্রেস, তা জানা গিয়েছিল সকালেই। তাতে গেরুয়া মিছিলের জৌলুস একটু বেড়েছে বই কমেনি, তা বোঝা গেল রোড শো-য় নরেন্দ্র মোদির আত্মবিশ্বাসী ভঙ্গি দেখেই।

বিকেল পাঁচটায় বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশপথের সামনে মদনমোহন মালব্যকে শ্রদ্ধা জানিয়েই শুরু হয় মোদির রোড শো। তার পর একে একে শতাব্দী প্রাচীন এই শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অংশ পেরিয়ে তিনি পৌঁছে যান দশাশ্বমেধ ঘাটে। সেখানে গঙ্গা আরতিও করেন তিনি।

মোদির এই শোভাযাত্রার জাঁক বাড়াতে হাজির ছিলেন দলের প্রায় সমস্ত শীর্ষনেতাই। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথসহ হাজির ছিলেন অন্যান্য রাজ্যের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রীরাও। ছিলেন অধিকাংশ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও। তার সঙ্গে দেখা গিয়েছে এনডিএ শরিক বিভিন্ন দলের নেতাদেরও।

মন্দিরনগরী বারাণসীর রাস্তায় যখন এগোচ্ছে মোদির শোভাযাত্রা, তখন রাস্তার দু’পাশে, বিভিন্ন বাড়ির ছাদে, জানালায় দেখা গিয়েছে অসংখ্য মানুষকে।

এই নিয়ে দ্বিতীয় বার বারাণসী থেকে ভোটে লড়ছেন নরেন্দ্র মোদি। আজকের রোড শোয়ের পর আগামীকাল স্থানীয় কালভৈরব মন্দিরের প্রাঙ্গণে একটি সভা করবেন তিনি। আগামীকালই এই কেন্দ্র থেকে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা তার।