৫ দিনের রিমান্ডে রাশেদ

622

কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খানকে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।সোমবার (২ জুলাই) ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক রায়হানুল ইসলাম উভয় পক্ষের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

রবিবর সকালে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক আল-নাহিয়ান খান জয় বাদী হয়ে শাহাবাগ থানায় তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করেন। পরে মিরপুর-১৪ নম্বর থেকে রাশেদকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সোমবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (উপপরিদর্শক) সজিবুজ্জামান রাশেদকে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করেন।

এদিকে আসামি পক্ষে আইনজীবী জাহিদুর রহমান জাহিদ ও নুর উদ্দিন রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধীতা করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক এ আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, ১ জুলাই সকালে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক আল-নাহিয়ান খান জয় বাদী হয়ে শাহাবাগ থানায় তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করেন। এজাহারে আল-নাহিয়ান খান জয় বলেন, রাশেদ খান ফেসবুক লাইভে এসে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করেছেন। এছাড়া ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে আসছিল। রাশেদ নিজে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে তাকে তুলে নেওয়া হচ্ছে বলে দাবি করেন। এরুপ বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর অভিযোগ করায় জনমনে ভীতির সৃষ্টি হয়েছে।