শপথগ্রহণকারীরা গণদুশমন, সময়মতো জনগণই বিচার করবে: গয়েশ্বর

788

 

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে যারা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করবেন তারা গণদুশমন। সময়মতো জনগণই বিচার করবে। তারা জাতীয়তাবাদী শক্তির পক্ষে থাকতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে বিএনপির নীতিনির্ধারক ফোরামের এই সদস্য এ মন্তব্য করেন। গণমাধ্যমবিরোধী কালো আইন বাতিল, সাংবাদিক হত্যার বিচার, বন্ধ গণমাধ্যম খুলে দেয়া এবং কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এই মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বামসাত্র)।

এর আগে দুপুরে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ে ঠাকুরগাঁও–৩ আসনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচিত সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান জাহিদ দলীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে শপথ নিয়েছেন। এ বিষয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন সাংবাদিকরা।

এ প্রসঙ্গে গয়েশ্বর বলেন, ‘কে শপথ নিলেন আর কোথায় শপথ নিলেন না সেটা বিষয় না। দেশের জনগণ ভোট দিতে পারেন নাই, এটা তো আমার কথা না, এটা দেশের জনগণের কথা। যারা আওয়ামী লীগ করে তাদের ৫ শতাংশ লোকও কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারেন নাই। সুতারাং জনগণ যেখানে ভোট দিতে পারেন না সে ৩০০ আসনে কেউ জিতে নাই, জয় লাভ করে নাই এবং পরাজিতও হয় নাই।’

‘সুতরাং দলের সিদ্ধান্ত ছাড়া নেত্রীকে জেলে রেখে কেউ যদি শপথ নেয় তাহলে তারা জাতীয়তাবাদী শক্তির পক্ষে থাকতে পারে না, তারা হলো গণদুশমন এবং জনগণই সময়মতো তাদের বিচার করবে এবং সেটার জন্য তাদেরকে অপেক্ষা করতে হবে।’

‘আমাদের দলীয় সিদ্ধান্ত আমরা পার্লামেন্টে যাব না, দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করবে সে দলের লোক হবে না। এই সহজ কথাটা আপনারা বুঝে নেন, এতে আমরা ক্লান্ত নই, ভীতও নই। যে চিৎকার করে জনগণ যেদিন থুথু ফেলবে, সেই থুথুতে তারা ভেসে যাবে সেদিন তারা বুঝবে।’